Advertisements

সঠিক মিউচুয়াল ফান্ড কিভাবে বাছবেন ? | মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার আগে এই তথ্য গুলি নিশ্চই জেনে নেবেন

Advertisements
 
মিউচুয়াল ফান্ড বাংলা | মিউচুয়াল ফান্ড ক্যালকুলেটর | SBI মিউচুয়াল ফান্ড মিউচুয়াল ফান্ডের সুবিধা মিউচুয়াল ফান্ড বর্তমান অবস্থা | ইকুইটি মিউচুয়াল ফান্ড | ইকুইটি ফান্ড

 

সম্পদ সৃষ্টির একটি অন্যতম উপায় হল মিউচুয়াল ফান্ড। তবে সঠিক মিউচুয়াল ফান্ড কিভাবে বাছবেন, সে সম্বন্ধে অনেকেরই সঠিক ধারণা নেই। তাই আজকের এই পোস্টে আমরা বিশদে আলোচনা করবো, যেসব বিষয়গুলি মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার আগে যাচাই করে নেওয়া উচিত, সেইসব সম্বন্ধে। চলুন তবে দেখে নেওয়া যাক। 

Advertisements

 

১. পনার লক্ষ্যের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কি  

Advertisements

        মিউচুয়াল ফান্ড বিভিন্ন ধরণের হয়। যেমন – কোনও মিউচুয়াল ফান্ডে রিটার্ন বেশী কিন্তু সাথে ঝুঁকিও বেশী। আবার কোনও কোনও মিউচুয়াল ফান্ড গড়ে রিটার্ন দেয়। এই জন্য আপনি যে পরিমাণ রিটার্ন পেতে চান, তার সাথে মিউচুয়াল ফান্ডটি সামঞ্জস্যপূর্ণ কিনা টা অবশ্যই দেখে নিন।  

Advertisements

 

২. দীর্ঘ সময়ের পার্ফর্মেন্স  

      মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার সময় সেই ফান্ডের কমপক্ষে বিগত ৫ বছরের পার্ফর্মেন্স অবশ্যই যাচাই করে নেবেন। মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার সময় কখনই ১, ২ বছরের পার্ফর্মেন্স দেখে ফান্ড বাছাই করবেন না। এর কারণ, এমন হতেই পারে যে বছরের উচ্চ রিটার্ন দেখে আপনি বিনিয়োগ করছেন, সেই বছর কোনও ম্যাক্রো একনমিক কারণের জন্য ফান্ডটি উচ্চ রিটার্ন দিয়েছে, আদতে হয়তো ফান্ডটি খুবই কম হারে রিটার্ন দেয়। তাই মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার আগে অবশ্যই ৫ বছর বা যদি সম্ভব হয় আরও বেশী সময়ের পার্ফর্মেন্স দেখে সিদ্ধান্ত নিন।  

Advertisements

 

৩. রোলিং রিটার্ন

      কোন মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন তা জানার জন্য, শুধুমাত্র সেই ফান্ডের বিগত পার্ফর্মেন্সই যথেষ্ট নয়। বিগত দিনের পার্ফর্মেন্স -এর সাথে সাথে, সেই ফান্ডের রোলিং রিটার্নও দেখা জরুরী। রোলিং রিটার্ন এর অর্থ নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে ফান্ডটি কেমন পারফর্ম করেছে তা বিচার করা। উদাহরণ স্বরূপ Axis Bluechip Fund Direct Plan Growth এই মিউচুয়াল ফান্ডটির কথা বলা যাক। এই ফান্ডটি চালু হয় ২০১৩ সালে। ফান্ডটির ৫ বছরের রোলিং রিটার্ন দেখার জন্য আমরা দেখবো, যে ফান্ডটি ২০১৩ থেকে ২০১৮ (অর্থাত্‍ ৫ বছর) অবধি কেমন পারফর্ম করেছে, আবার ২০১৪ থেকে, ২০১৯ কেমন পারফর্ম করেছে, ২০১৫ থেকে ২০২০ এবং ২০১৬ থেকে ২০২১ অবধি কেমন পারফর্ম করেছে। ৩ বছরের রোলিং রিটার্ন দেখার জন্য তেমনি ২০১৩-১৬, ২০১৪-১৭, ২০১৫-১৮ এইভাবে ফান্ডটির পার্ফর্মেন্স বিচার করতে হবে। ভালো মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে এই রোলিং রিটার্ন গুলি সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে।  

Advertisements

 

৪. এক্সপেন্স রেশিও 

      মিউচুয়াল ফান্ড বাছাই করার সময় ফান্ডের এক্সপেন্স রেশিও অবশ্যই দেখে নেবেন। এক্সপেন্স রেশিও বলতে বোঝায় বিনিয়োগকারীর লগ্নিকৃত টাকার কত অংশ মিউচুয়াল ফান্ড তাদের ফি হিসেবে নিজেদের কাছে রেখে দেবে। যেমন Axis Bluechip Fund Direct Plan Growth এই মিউচুয়াল ফান্ডটির এক্সপেন্স রেশিও ০.৪৭%। এর অর্থ হলো বিনিয়োগকারীর প্রতি ১০০ টাকা বিনিয়োগে এই মিউচুয়াল ফান্ড কোম্পানী ৪৭ পয়সা নিজেদের কাছে ফি হিসেবে রাখবে। সাধারণত মিউচুয়াল ফান্ড গুলি এক্সপেন্স রেশিও হিসেবে বিনিয়োগের ১% থেকে ২% হারে ফি নেয়। তবে কোনো মিউচুয়াল ফান্ড এর বেশী এক্সপেন্স রেশিও নিলে সেই ফান্ড থেকে এড়িয়ে চলাই ভালো।

Advertisements

 

৫. রিস্ক রিওয়ার্ড 

      মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার সময় ফান্ডটির ঝুঁকি কতটা এবং তার সাথে রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনা কতটা তার তুল্যমূল্য বিচার করে নিন। 

 

৬. Allocation/Diversification

         যে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করছেন, সেই ফান্ডটি কোন কোন শেয়ারে বিনিয়োগ করছে, তা অবশ্যই দেখে নেবেন। যদি কোনও মিউচুয়াল ফান্ড কোনও একটি বা দুটি শেয়ারে তাদের মূলধনের বেশীর ভাগ অংশ বিনিয়োগ করে তাহলে বুঝে নিন যে ফান্ডটি অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ণ। 

Advertisements

 

৭. ফান্ড ম্যানেজার

মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার সময় তার ফান্ড ম্যানেজার এবং তার দলের পূর্ববর্তী পার্ফর্মেন্স কেমন সে সম্বন্ধে অনুসন্ধান করে নিন। যদি সেই মিউচুয়াল ফান্ডের ফান্ড ম্যানেজারের চালানো পূর্ববর্তী ফান্ডটির পার্ফর্মেন্স ভালো না হয় তাহলে সেই মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ না করাই ভালো। 

Advertisements

 

৮. মিউচুয়াল ফান্ড কোম্পানীর অন্য ফান্ডের সাথে তুলনা

একই মিউচুয়াল ফান্ড কোম্পানী একই সাথে অনেক গুলি ফান্ড চালাই। তাই বিনিয়োগ করার আগে ওই কোম্পানীর অন্যান্য মিউচুয়াল ফান্ড গুলির পার্ফর্মেন্স কেমন তা দেখে নিন।   

 

৯. টার্নওভার রেশিও

টার্নওভার রেশিও বলতে বোঝায়, বিগত এক বছরে কোনও মিউচুয়াল ফান্ড তার পোর্টফোলিওর শেয়ার গুলি কি পরিমাণে পরিবর্তন করেছে।  টার্নওভার রেশিও অতিরিক্ত হলে বুঝতে হবে ফান্ড ম্যানেজার তার বাছাই করা শেয়ার গুলি সম্বন্ধে নিশ্চিত নন তাই তাঁকে বারবার নতুন নতুন শেয়ার কেনাবেচা করতে হচ্ছে। 

Advertisements

 

১০. এক্সিট লোড  

মিউচুয়াল ফান্ড থেকে বেরিয়ে গেলে ফান্ড কোম্পানী যে পরিমাণ ফি কেটে নেয় তাকে এক্সিট লোড বলে। বলা বাহুল্য, এক্সিট লোড যত কম হবে, বিনিয়োগকারীর পক্ষে ততই ভালো। 

 

১১. লক ইন পিরিয়ড

অনেক মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করলে লক ইন পিরিয়ড থাকে। এর অর্থ, নির্দিষ্ট সময়ের আগে আপনি মিউচুয়াল ফান্ড থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন না। লক ইন পিরিয়ড খুব বেশী দিনের হলে সেখানে বিনিয়োগ না করাই ভালো ।

Advertisements

 

Zerodha বা Upstox -এর মাধ্যমে খুব সহজেই মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করা শুরু করতে পারেন। তবে আপনি যদি ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট না খুলেই মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে চান তাহলে IND money অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমেও বিনিয়োগ করতে পারেন। 

Advertisements

 

ZERODHA -তে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

UPSTOX -এ ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

IND Money অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

 

 

 

সতর্কীকরণ: – শেয়ার বাজার বা মিউচুয়াল ফাণ্ডে বিনিয়োগ করা সবসময় ঝুঁকিপূর্ণ । তাই শেয়ার বাজার বা মিউচুয়াল ফণ্ডে বিনিয়োগ করার আগে সবদিক ভালো করে যাচাই করে নেবেন। এই পোস্ট পড়ে কেউ মিউচুয়াল ফাণ্ড বা শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করে ক্ষতির সম্মুখীন হলে, এই পোস্টের লেখক বা এই ব্লগের সাথে যুক্ত কেউ কোনোভাবেই দায়ী হবেন না।

Advertisements

 

আশা করি আপনার জন্য সঠিক মিউচুয়াল ফান্ড কিভাবে বাছাই করবেন, সে সম্বন্ধে সম্যক ধারণা দিতে পেরেছি। এই বিষয়ে কোনও প্রশ্ন থাকলে কমেণ্টে লিখুন অথবা আমাদের মেল করুন [email protected] -তে। 

 

 

আরও পড়ুন: –

২০২২ এর সেরা ৫টি মিউচুয়াল ফান্ড | ২০২২ এর ৫টি সেরা SIP

মিউচুয়াল ফান্ডের সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন শব্দ গুলি | মিউচুয়াল ফান্ডের বিভিন্ন টার্ম | Terms related to Mutual Funds in Bengali

অনলাইনে বিনামূল্যে সিবিল (CIBIL) স্কোর কিভাবে জানবেন | সিবিল স্কোর চেক করার পদ্ধতি

Spread the love
Advertisements

1 thought on “সঠিক মিউচুয়াল ফান্ড কিভাবে বাছবেন ? | মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করার আগে এই তথ্য গুলি নিশ্চই জেনে নেবেন”

  1. Advertisements

Leave a Comment

error: Content is protected !!